চিকিৎসা ব্যবস্থাপনায় ব্যর্থতার কারনে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর অপসারণ চান বিএনপির হারুন

চিকিৎসা ব্যবস্থাপনায় ব্যর্থতার কারনে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর অপসারণ চান বিএনপির হারুন

চিকিৎসা ব্যবস্থাপনায় ব্যর্থতার কারনে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর অপসারণ চান বিএনপির হারুন

 

এএনবি ঃ চিকিৎসা ব্যবস্থাপনাসহ করোনো ভাইরাস মোকাবিলা ও চিকিৎসা ব্যবস্থাপনায়  স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে অভিযোগ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের অপসারণ দাবি করেছেন বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩)।

মঙ্গলবার (২৩ জনু) জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে এ দাবি জানান।

সংসদ সদস্য হারুন বলেন, ‘স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে (ডিজি) ফোন করলে ফোন রিসিভ করেন না।  মেসেজ দিয়ে সাড়া পাওয়া যায় না। ওই অফিসের পিএস, পিএ, পরিচালক কেউই ফোন ধরেন না।  চীনা বিশেষজ্ঞরা বাংলাদেশের করোনা ব্যবস্থাপনা পরিস্থিতিতে হতাশা প্রকাশ করেছেন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর একটি বিকলাঙ্গ প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে।  এগুলো পরিবর্তন করুন।  স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে সরিয়ে দিন।  এদের সরিয়ে দিয়ে এই পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য উপযুক্ত ও প্রতিশ্রুতিশীল ব্যক্তিদের সেখানে বসাতে হবে।’

করোনা চিকিৎসায় অব্যবস্থাপনার অভিযোগ তুলে তিনি বলেন,  ‘বিএমএ (বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন) আওয়ামী লীগের একটি প্রতিষ্ঠান। তারা বলছেন করোনা চিকিৎসায় মৃত্যুর দায় মন্ত্রণালয় এবং অধিদপ্তরের।  এটা বাস্তব কথা। করোনার এই দুঃসময়ে কিট বা করোনার সামগ্রী, কোভিড হাসপাতালে চিকিৎসকদের কী দুরবস্থা, রোগীরা কী অবস্থায় আছেন, কোনো খরব নেই।’

করোনা পরিস্থিতি দীর্ঘস্থায়ী হলে তা আমাদের জন্য বিরাট চ্যালেঞ্জ উল্লেখ করে বিএনপির এই সংসদ সদস্য বলেন, ‘দেশে এখন জাতীয় যে সংকট তৈরি হয়েছে তা থেকে উত্তরণের জন্য জাতীয় ঐক্য দরকার। আর ঐক্যমত প্রশ্নে যে ক্ষতগুলো সৃষ্টি হয়েছে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানসহ বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে যে হাজার হাজার মামলা হয়েছে তা প্রত্যাহার করে নিতে হবে।’