দিনাজপুরে নতুন আরো একজন করোনা আক্রান্ত এ পর্যন্ত  জেলায় মোট আক্রান্ত ১২১ জন সুস্থ ১৬ জন 

দিনাজপুরে নতুন আরো একজন করোনা আক্রান্ত এ পর্যন্ত  জেলায় মোট আক্রান্ত ১২১ জন সুস্থ ১৬ জন 

দিনাজপুরে নতুন আরো একজন করোনা আক্রান্ত এ পর্যন্ত  জেলায় মোট আক্রান্ত ১২১ জন  সুস্থ ১৬ জন 


এএনবি মাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর প্রতিনিধি ঃদিনাজপুরে গত ২৪ ঘন্টায় চিরিরবন্দর উপজেলায় নতুন আরো একজন করোনা আক্রান্ত রোগি শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনায় আক্রান্ত হলেন ১২১ জন। 
দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুস শনিবার (২৩ মে) রাত পৌনে ১০ টায় গত ২৪ ঘন্টায় নতুন আরো একজন করোনায় আক্রান্তের খবরটি নিশ্চিত করেন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনায় আক্রান্ত রোগির সংখ্যা দাড়ালো ১২১ জনে। নতুন আক্রান্ত একজন পুরুষ ও চিরিরবন্দর উপজেলার বাসিন্দা। আক্রান্তদের মধ্যে ৮৯ জন পুরুষ, ২৬  জন মহিলা ও শিশু ৬  জন। 
সিভিল সার্জন জানান, আক্রান্ত ১২১ জনের মধ্যে রয়েছে সদর উপজেলায় ৩১ জন (মৃত একজনসহ), কাহারোলে ৮ জন, বিরলে ১১ জন, বোচাগঞ্জে ৮ জন, পার্বতীপুরে ৭ জন, ফুলবাড়ীতে ৪ জন, নবাবগঞ্জে ৭ জন, হাকিমপুরে দুইজন, খানসামায় ৬ জন, বিরামপুরে ৬ জন, ঘোড়াঘাটে ১৯ জন, চিবিরবন্দরে দুইজন ও বীরগঞ্জে ১০ জন। 
তিনি জানান, এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৬ জন। যার মধ্যে সদরে ৫ জন, ফুলবাড়ীতে একজন, নবাবগঞ্জে ৩ জন, পার্বতীপুরে দুইজন, কাহারোলে একজন, বোচাগঞ্জে দুইজন, হাকিমপুরে একজন ও ঘোড়াঘাটে একজন। এছাড়া হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ৯৬ জন। আর প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে রয়েছেন ৩ জন, হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৫ জন ও একজনের মৃত্যু হয়েছে। 
সিভিল সার্জন জানান, ২৩ মে শনিবার দিনাজপুর ল্যাব হতে মোট ৪২টি নমুনার ফলাফল পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ১টি নমুনার ফলাফল পজিটিভ ও বাকী ৪১টি নমুনার ফলাফল নেগেটিভ এসেছে। এ নিয়ে দিনাজপুর জেলায় করোনায় (কোভিট-১৯) প্রমানিত রোগির সংখ্যা হলো ১২১ জন। 
তিনি জানান, এ পর্যন্ত ২৬৮৪টি নমুনা ল্যাবে পাঠানো হয়েছে যার মধ্যে ২৪৯৯টি নমুনার ফলাফল এসেছে। আর ২৩ মে শনিবার ১২৩টি নমুনা পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। 
সিভিল সার্জন আরো জানান, গত ২৪ ঘন্টায় ৫৩ জনসহ এ পর্যন্ত ৮১৪৭ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে এবং এ পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইন হতে ছাড় পেয়েছেন ৬০৩৬ জন। বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন ২১১১ জন। এছাড়া এ পর্যন্ত প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে ২৭৮ জনকে ও প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ২০৮ ও বর্তমানে প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে রয়েছেন ৭০ জন।