রংপুরে চাউল, আটা বরাদ্দ দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন........

রংপুরে চাউল, আটা বরাদ্দ দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন........

রংপুরে চাউল, আটা বরাদ্দ দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন........



এএনবি আসাদুজ্জামান আফজাল রংপুর
বাংলাদেশে করোনা ৮ই মার্চ ২০২০ ইং তারিখে প্রবেশ করার মূহুর্ত থেকে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধান মন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা রংপুরের পুত্রবধু জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে করোনা প্রতিরোধে যাবতীয় পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে সরকার। লকডাউন, সামাজিকদূরুত্ব অন্যান্য পদক্ষেপ খুব গুরুত্ব সহকারে প্রয়োগ করা হয়। এর ফলশ্রæতিতে ঘর বন্দী হয়ে পড়ে দেশের মানুষ সহ রংপুর সিটি কর্পোরেশন এলাকার ৩৩ টি ওয়ার্ড ও ৬ টি থানার ১০ লক্ষ জনগন। ঘর বন্দী ও দৈনিক খেটে খাওয়া মানুষের খাদ্য সহায়তা দিতে সরকার বিশাল বাজেটে বিষদ বরাদ্ধ ঘোষনা করেন। এবং প্রশাসন ও স্থানীয় সরকার প্রতিনিধিদের মাধ্যমে তা শুরু করে যা এখন অব্যাহত আছে। রংপুরে করোনা মুক্ত স্বাভাবিক দেশ না হওয়া পর্যন্ত তা অব্যাহত থাকবে। করোনা সংকট সময়ে রংপুর সিটি কর্পোরেশনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ২ হাজার ১০ মেট্রিক টন চাল, টিসিবির মাধ্যমে ন্যায্য মূল্যে খাদ্য বিতরণ, সরকারের বিভিন্ন প্রনোদনা প্যাকেজ ঘোষনা করায় অভিনন্দন জানিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ রংপুর মহানগর সাধারণ সম্পাদক, রংপুর কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংক লিঃ চেয়ারম্যান ও রংপুর জমি বন্দকি ব্যাংক লিঃ চেয়ারম্যান তুষার কান্তি মন্ডল। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রথম ধাপে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের জন্য যে চাল বরাদ্দ দেন জিআর ১৬৫ মেট্রিক টন, ২য় মেয়াদে ওএমএস পয়েন্টের মাধ্যমে বিক্রয়ের জন্য ১০ টাকা কেজি ২৮৮ টন চাল, ৯০ টন আটা ১৭ টাকা কেজি, মোট ভোক্তা ১৪ শত জন, আটা মোট ভোক্তা ৯ শত জন, জি আর চাউল ত্রানের জন্য ২৩০ মেট্রিক টন, ৩য় ধাপে জি আর চাল ৫১০ মেট্রিক টন, ৪র্থ ধাপে ১৮ শত পরিবারকে ২০ কেজি করে চাল ৫ম ধাপে ওএমএস এর চাল ৩৬০ মেট্রিক টন, আটা ১৮০ মেট্রিক টন, ৬ষ্ঠ ধাপে জি আর চাল ৬০ হাজার পরিবার কে ২০ কেজি করে মোট চাল মোট ১২০০ মেট্রিক টন (দুই একদিনের মধ্যে শুরু হবে)। রংপুর সিটি কর্পোরেশনের করোনায় কর্মহীন অসহায় মানুষের মাঝে কতটুকু বরাদ্দ দিলেন সিটি কর্পোরেশনের জনগনের আরোও বেশি বরাদ্দ দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট অনুরোধ করছি। আমার জানা মতে সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ করোনায় অসহায় মানুষের মাঝে শুধু মাত্র নিজের সিটি কর্পোরেশনের অর্থায়নের ১৪০ মেট্রিক টন জনগনের মাঝে বিতরণ করেছেন। আমি অনুরোধ করবো দেশের অন্যান্য সিটি কর্পোরেশন এর মত রংপুর সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ জনগনের মাঝে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিবেন।